ঢাকামঙ্গলবার , ৯ জুন ২০২০
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

নমুনা দিতে গিয়েই মারা গেলেন বৃদ্ধ

Link Copied!

জ্বরে ভুগছিলেন তিনি ১২ দিন। ছিল শ্বাসকষ্ট। অবশেষে মঙ্গলবার চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা জমা দেন। এর পাঁচ মিনিট পরই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন রবিন্দ্র শীল (৮০)।এদিকে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া এক গৃহবধূর লাশ গ্রহণ করেনি স্বামীর পরিবার। পরে তাকে পিতার বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার পশ্চিম সৈয়দবাড়ি এলাকার বৃদ্ধ রবিন্দ্র শীল ১২ দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন।স্থানীয় এক পল্লী চিকিৎসকের কাছে তিনি চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।জ্বর না কমায় চিকিৎসকের পরামর্শে মঙ্গলবার দুপুরে করোনা পরীক্ষার নমুনা জমা দিতে যান তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। নমুনা দেওয়ার কিছুক্ষণ পর অচেতন হয়ে তিনি লুটিয়ে পড়েন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক উম্মে শারমিন বলেন,হাসপাতালে নমুনা দিতে এসে তিনি মারা যান। নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত বলা যাবে না তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন।’

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ল্যাব টেকনোলজিস্ট মো. নাসির উদ্দিন বলেন, নমুনা নেওয়ার পাঁচ মিনিট পরই তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান।তখন তাকে জরুরি বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃদ্ধের মৃত্যুর পর তার সাথে আসা ছেলের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে।’

এদিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সোমবার রাতে মারা গেছেন রাঙ্গুনিয়ার স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের আন্ন সিকদার পাড়ার গৃহবধূ (৩০)।তিনি জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। মৃত্যুর পর তাকে দাফনের জন্য লাশ শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে গেলে বাধা দেন বাড়ির লোকজন।পরে মঙ্গলবার লালানগর ইউনিয়নের মোল্লা পাড়ায় বাবার বাড়িতে তাকে দাফন করা হয়।গৃহবধূর স্বামী বিদেশে থাকেন। ছোট এক সন্তান নিয়ে তিনি বাবার বাড়িতেই অবস্থান করছিলেন।