ঢাকাশুক্রবার , ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

বিশ্ব ক্যানসার দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিনিধি,দৈনিক ডাকবাংলা ডট কম
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২২ ৯:১৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবছর ৪ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ক্যানসার দিবস পালন করা হয়। এ উপলক্ষে এবারের প্রতিপাদ্য- ‘আসুন ক্যানসার সেবায় বৈষম্য দূর করি।’ শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ক্যানসার প্রতিরোধ ও সচেতনতা তৈরিতে ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশের (ডব্লিউসিএসবিডি) আয়োজনে সারা দেশে পালিত হয়েছে বিশ্ব ক্যানসার দিবস।

সারা বিশ্বে এই দিনটি ‘ইউনিয়ন ফর ইন্টারন্যাশনাল ক্যানসার কন্ট্রোল’ নামক একটি বেসরকারি সংস্থার নেতৃত্বে উদযাপন করা হয়, যা পূর্বে ক্যানসারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন নামে পরিচিত ছিল। এই সংস্থার সদর দপ্তর জেনেভায় অবস্থিত, যার ১৭০টিরও বেশি দেশে প্রায় দু’হাজার সদস্য রয়েছে।

বিশ্বে প্রতিবছর ৮২ লাখ মানুষ ক্যানসারে মৃত্যুবরণ করে। বিশেষ করে সাড়ে ১০ কোটি নারী ব্রেস্ট ক্যানসারে আক্রান্ত হন। আশঙ্কাজনক খবর হলো, এ মরণব্যাধিতে আক্রান্তদের মধ্যে অধিকাংশই হচ্ছে বাংলাদেশসহ তৃতীয় বিশ্বের নাগরিক।

দিবসটি উদযাপনের উদ্দেশ্য হলো মারাত্মক ও প্রাণঘাতী এই রোগ সম্পর্কে সচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়া এবং এই রোগে আক্রান্ত রোগীদের সাহায্য করার জন্য মানুষকে উৎসাহিত করা। ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশ (ডব্লিউসিএসবিডি) বেসরকারি সংস্থার নেতৃত্বে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকাসহ জেলা ও উপজেলা শহরগুলোতে নানা আয়োজনে বিশ্ব ক্যানসার দিবস পালিত হয়েছে।

ক্যানসার প্রতিরোধ ও সচেতনতায় সংস্থাটির উদ্যোগে সকাল ৮টায় সাইকেল র‍্যালি অনুষ্ঠিত হয়। র‍্যালিটি কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে শুরু হয়ে শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। এ সময় র‍্যালিটি, রাজারবাগ মোড়, শাহজাহানপুর, খিলগাঁও রেলগেট, মালিবাগ মোড়, আবুল হোটেল, রামপুরা ব্রিজ, হাতিরঝিল, মগবাজার, কারওয়ান বাজার, বাংলামোটর ও শাহবাগ মোড় পয়েন্টগুলো প্রদক্ষিণ করে।

ঢাকার মোহাম্মদপুর, উওরা মিরপুর এলাকায় দিবসটি উপলক্ষে ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশের উদ্যোগে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়াও পিকআপ ভ্যানে করে নারায়ণগঞ্জ, কেরানীগঞ্জ এলাকায় ক্যান্সার প্রতিরোধ ও সচেতনতায় প্রচারণা চালিয়েছে সংস্থাটি।

ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশের আয়োজনে ঢাকার বাইরেও দিবসটি পালিত হয়েছে। বরিশাল, ফরিদপুর, নারায়ণগঞ্জ, সাতক্ষীরা, হবিগঞ্জ, বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ, দিনাজপুরের হাকিমপুর (হিলি বন্দর), চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা, রংপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় বিশ্ব ক্যানসার দিবস পালিত হয়েছে।

ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশের সভাপতি সৈয়দ হুমায়ুন কবির বলেন, ক্যানসার একটি বড় রোগ, যার সময়মতো চিকিৎসা প্রয়োজন। প্রতিবছর বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে বিপুলসংখ্যক মানুষ এই মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারায়। আমাদের দেশে ক্যানসার ও এ রোগে মৃত্যুর হার বৃদ্ধির কারণ হিসেবে সচেতনতা ও শিক্ষার অভাব সেইসঙ্গে অর্থনৈতিক অবস্থাও বিবেচ্য।
সৈয়দ হুমায়ুন কবির আরো জানান, ক্যানসার বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি প্রয়োজন। এটা কী ধরনের রোগ, কী কী কারণে ঝুঁকি বাড়ে, প্রতিরোধের জন্য কী কী করণীয় সে বিষয়ে সচেতনতা জরুরি। ক্যানার যেন না হয় সে জন্য মানুষের মধ্যে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। ক্যানসার প্রতিরোধে নিয়মিত ব্যায়ামের ওপর গুরুত্ব দেওয়া এবং ধূমপান পরিহার করতে হবে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোসহ নিয়মিত শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার কথাও বলেন তিনি।

ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশ মূলত ক্যানসার আক্রান্ত রোগীদের নিয়ে কাজ করে। কাউন্সিলিংয়ের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সহায়তা দিয়ে থাকে। এর বাইরেও সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে নানান কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে প্রতিষ্ঠানটি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ল্ড ক্যানসার সোসাইটি বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. কামাল হোসেন, নির্বাহী কমিটির অন্যান্য সদস্য, স্বেচ্ছাসেবক ও বাংলাদেশ স্কাউটসের সদস্যবৃন্দ প্রমুখ।