ঢাকাশনিবার , ২৯ জানুয়ারি ২০২২
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

পুনর্গণনাতেও বিজয়ী হয়েছে জায়েদ খান।

নিজস্ব প্রতিনিধি,দৈনিক ডাকবাংলা ডট কম
জানুয়ারি ২৯, ২০২২ ৯:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শিল্পী সমিতির সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে জায়েদ খানের কাছে ১৩ ভোটে হারের পর ফলাফলে অসন্তোষ প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেছিলেন সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী নিপুণ। তার আপিলের ভিত্তিতে ভোট পুনর্গণনাতেও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে জায়েদ খানকে।

এর আগে ওই আপিলের ব্যাপারে এফডিসিতে শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জায়েদ খান বলেন, আপিল করা হয়েছিল, সেই আপিলটা শুনানি হয়েছে। সবার সামনে ভোট পুনরায় গণনা হয়েছে পুঙ্খানুপঙ্খভাবে। সেখানে ওই প্যানেলের চারজন ছিলেন, আমার প্যানেলেরও চারজন ছিলাম।

তিনি বলেন, সব ব্যালট বাতিল ভোট সব দেখে মনে হচ্ছে আগের যে সংখ্যা সেটাই ঠিক আছে, কোনো পরিবর্তন বা পরিমার্জন হয়নি। একদম স্পষ্ট, পানির মতো ক্লিয়ার, ভোটে কোনো ধরনের ভুল গণনা বা কোনো ধরনের কিছু হয়নি। বাতিল ভোটগুলো বাতিলই হয়েছে। ভোট গণনা শুধু সেক্রেটারি পদেই হয়েছে। সেটা ঠিক ছিল। আর কোনো সমস্যা নেই। আজকের আপিলের নিষ্পত্তি হয়ে গেছে।

এর আগে ভোট চলাকালীনও নির্বাচনের দিন জায়েদ খানের বিরুদ্ধে চাদরের নিচ দিয়ে টাকা দিয়ে ভোট কেনার অভিযোগ তোলেন নিপুণ।

নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত জায়েদ খান পেয়েছেন ১৭৬ ভোট, অন্যদিকে নিপুণ পেয়েছেন ১৬৩ ভোট। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে নিপুণের ২৬টি ভোট বাতিল হয়েছে।

২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির ৪৪ অভিনয়শিল্পী ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ৪২৮ জন ভোটার ২২ জনকে প্রার্থীকে বেছে নিয়েছেন।

এবারের নির্বাচনে সভাপতি পদে অভিনেতা মিশা সওদাগর এবং সাধারণ সম্পাদক পদে চিত্রনায়ক জায়েদ খান এক প্যানেল থেকে নির্বাচন করেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেলে সভাপতি পদে অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার নির্বাচন করেন।