ঢাকাশনিবার , ২৯ জানুয়ারি ২০২২
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

PS কে কেন আমরা ভোট দিবো?রানা তাসলিম উদ্দিন

দৈনিক ডাক বাংলা
জানুয়ারি ২৯, ২০২২ ৪:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!



পর্তুগাল SOCIALIST PARTY – PS কে কেন আমরা ভোট দিবো। আসুন এক নজরে দেখে নেই সোশ্যালিস্ট পার্টি – PS বিদেশীদের জন্য কি করেছে।

পর্তুগালে একমাত্র সোশ্যালিস্ট পার্টি -PS আমাদের বিদেশীদের বন্ধু। তাঁরাই বিগত দিনে সামাজিক মূল্যবোধ রক্ষার্তে বিদেশীদের স্বার্থ রক্ষায় যাবতীয় আইন প্রনয়ন করেছেন। ১৯৯৩ ও ১৯৯৬ সালে লিগালাইজেশন এক্সট্রাঅর্ডিনারির মাধ্যমে পর্তুগালে জমে থাকা ৪০ হাজার ইমিগ্রান্টকে বৈধতার সুযোগ দিয়েছে। সেই সময় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে অবৈধ থাকা বাংলাদেশীরা পর্তুগালে এসে ইউরোপে থাকার বৈধতা পেয়েছে।

২০০১ সালে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে কাগজ জমা দিয়ে হাজার হাজার বাংলাদেশী ও অন্যান্য দেশের মানুষ সহজে বৈধ হতে পেরেছে। ২০০৭ সালে আর্টিকেল ৮৮ ও ৮৯ এর আওতায় বহু ইলিগ্যাল অভিবাসী লিগ্যাল হতে পেরেছিল।

২০১০ সালে অভিবাসীদের ১০ বছরের পরিবর্তে ৬ বছরে পাসপোর্ট দেয়ার আইন তৈরি করে। পরবর্তিতে ২০১৬ সালে ৬ বছরের পরিবর্তে ৫ বছরে পাসপোর্ট আবেদনের আইন পাশ করে।
২০১৮ তে অভিবাসীদের ছেলে মেয়ে জন্ম হলে সাথে সাথেই নাগরিকত্বের আবেদন আইন পাশ করে। তার পুর্বে ঢালাও ভাবে পেন্ডিং থাকা সকলের বৈধ ভাবে থাকার কাগজ দিয়ে দেয়।
কভিড সময়ে সকল অভিবাসীকে নাগরিকদের সমমর্যাদা প্রদান করে লে অফ সহ নানাবিধ সুযোগ সুবিধা প্রদান করে। অতি দ্রুত সবার স্বাস্থ্য সেবার জন্য SNS নাম্বার প্রদান করে। সকল অভিবাসীদের জন্য অটো রিনিউ ও মেয়াদ উত্তীর্ন ডকুমেন্টের মেয়াদের সময় সীমা বৃদ্ধি করে।

গত ২০০৯ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত পর্তুগাল সহ গোটা ইউরোপে মন্দা দেখা দিলে অর্থনৈতিক অবস্থা চরম বিপর্যয়ে পৌঁছে ঠিক তখনই দলের সেক্রেটারি DR. ANTONIO COSTA প্রধান মন্ত্রী হয়ে দেশ নির্মানে হাত দেন। ২০১৫ থেকে ২০১৮ এর মধ্যে পর্তুগালকে এক অনন্য পর্যায়ে পৌঁছে দেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেনা পরিশোধ করে অনেক টাকা মউকুপ করে নেন। পুরো বিশ্বে তথা ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে পর্তুগালকে নতুন রুপ দান করেন। ফরেন ইনভেস্টরে পুরো দেশ ছেয়ে যায়। হাজার হাজার মিলিয়ন ইউরো পর্তুগালে ঢুকে পড়ে। শুধুমাত্র গোল্ডেন ভিসায় ৬ বিলিয়ন ইউরো পর্তুগালে ইনভেস্ট হয়। দেশ অনেকটাই স্বস্থির নিঃশ্বাসে হাঁফ ছেড়ে বাঁচে।

২০১৬ ও ২০১৯ সালের মধ্যে পর্তুগালের অর্থনীতি ইউরোপীয় ইউনিয়নের গড়ের চেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সময়ের মধ্যে, বিনিয়োগ (+২৮%) এবং রপ্তানি (+২৩%) এর ভিত্তিতে জিডিপি ১১.৫% বৃদ্ধি পেয়েছে।

২০১৬, ২০১৭, ২০১৮ এবং ২০১৯ এই ৪ বছরে পর্তুগিজ অর্থনীতি ২০১৫ সাল পর্যন্ত যখন ডানপন্থীদের শাসন করেছিল তখন থেকে গড়ে ৭ গুণ বেশি বৃদ্ধি পেয়েছিল। ২০১৫ সালে PS দেশের জন্য একটি নতুন পথ সন্ধান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তারপর থেকে আজবদি তা অব্যাহত রেখেছে।

আমাদের জয়ের উপায় হল আমাদের একত্রে এগিয়ে যাওয়া। একমাত্র ভোটের মাধ্যমে আমরা এগুতে পারবো। PS যে পথের সন্ধান করেছে সেই পথের গল্প এখনও শেষ হয়নি, সেই পথ আসা এখনো বাকী আছে। তাই আমাদের দেশ গঠনে এই সংগ্রাম আরও চলবে।

বাড়ির উচ্চ মূল্যের প্রতিক্রিয়া প্রয়োজনে, বিশেষ করে তরুণ এবং নিম্ন আয়ের পরিবারের জন্য PS আগামী ৪ বছরে ৩০,০০০ এর বেশি সাশ্রয়ী মূল্যের বাড়ি তৈরি করার অঙ্গীকার করেছে। সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন, সুস্থ থাকা ও জনসংখ্যাগত ভারসাম্যের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হওয়ার জন্য ২৬,০০০ বাসস্থান এবং সাশ্রয়ী মূল্যে ৬,৮০০ বাসস্থান নির্মাণের পূর্বাভাস নির্বাচনী ইস্তেহারে ঘোষণা দেয়া হয়। এই পরিস্থিতিতে PS এর ইস্তেহারে সাড়া দেয়া সবচেয়ে বেশী প্রয়োজন বলে মনে করি।

PS কঠোরতা ও স্থবিরতার পাতা উল্টে দিয়েছে। বৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়াই করে দেশকে উন্নত করা সম্ভব, এটা PS দেখিয়েছে। এখন এই মহামারীতে অন্য পৃষ্ঠা উল্টানোর সময়। এখানে PS আবারও হাতা গুটিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলছে। পর্তুগালের অর্থনীতি পুনরুদ্ধার করতে হবে ও একটি সবুজ, সুন্দর এবং আরও উদ্ভাবনী পর্তুগাল তৈরি করতে PS কে কাজ করতে হবে হবে। আর তা একমাত্র সম্ভব সন্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে।

পরবর্তী ৪ বছরের জন্য একটি স্থিতিশীল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করার জন্য সকলের সমর্থন প্রয়োজন। সোশ্যালিস্ট পার্টিকে আরও এগিয়ে যেতে সাহায্য করতে হবে। সোশ্যালিস্ট পার্টি প্রত্যেকের উপর নির্ভরশীল। উন্নয়নের এই পথ অতিক্রম করতে হবে একসঙ্গে ও ভোটের মাধ্যমে। তাই আসুন আগামী ৩০ জানুয়ারি পর্তুগাল সোশ্যালিস্ট পার্টি PS কে ভোট দেই। আমাদের অধিকারকে বাস্তবায়ন করি। সকল অভিবাসীদের PS কে ভোটের মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা জানানো উচিত।

আমাদের এই অভিবাসীরা বিশেষ করে আমাদের বাংলাদেশীরা যে যেখানে থাকি সেখানেই যেন SOCIALIST PARTY – PS কে ভোট দেই। আমাদের ভোটের মাধ্যমে PS আবারও সরকার গঠন করবে বলে আমি বিশ্বাস করি। এখন আমাদের থামার সময় নয়, আমাদের এগিয়ে যেতেই হবে।

সোশ্যালিস্ট পার্টি দীর্ঘজীবি হোক, আন্তনিয় কোস্টা এগিয়ে যাক, পর্তুগালের জয় হোক, অভিবাসীদের অধিকার বাস্তবায়ন হোক। জয় পর্তুগাল। জয় এশিয়ান কমিউনিটি।

লেখক: রানা তাসলিম উদ্দিন
স্হানীয় রাজনৈতিক ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব।