ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০২১
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

শুরুতেই ভারতের সামনে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি,দৈনিক ডাকবাংলা ডট কম
ডিসেম্বর ১৪, ২০২১ ৯:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আশরাফুল ইসলাম লক্ষ্যের ব্যাপারে বেশ স্পষ্ট। সেটা সাংবাদিকদের খোলাখুলি বলতেও দ্বিধা করেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক। ভারতের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার আগে যেমন বলছিলেন, ‘ধরেন ২-১ বা ৩-১ হলেই আমরা খুশি থাকব।’ ২-১, ৩-১-এ তিনি যে হারই বুঝিয়েছেন, এটি বুঝতেও কারো সমস্যা হয়নি।

ভারত হকিতে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ইনফর্ম দলগুলোর একটি। ৪০ বছর পর আবার তারা অলিম্পিকের পদক জিতেছে। ঢাকায় সর্বশেষ এশিয়া কাপেও শিরোপা জিতে গেছে তারা। সে আসরে মুখোমুখি দেখায় বাংলাদেশের জালে ৭ গোল জড়িয়েছিল দলটি। তাদের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই আজ বাংলাদেশ স্কোরলাইন ২-১ বা ৩-১ রাখতে পারা মানে স্বাগতিক দর্শকদের জন্য উপভোগ্য একটি ম্যাচই উপহার দেওয়া আশরাফুলদের। এই টুর্নামেন্টে ছয় দলের মধ্যে পঞ্চম হওয়াও নয়, ম্যাচগুলোতে ওই প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারাটাকেই আসলে মূল লক্ষ্য মানছে গোবিনাথন কৃষ্ণমূর্তির দল। ‘ভারত সব দিক দিয়ে আমাদের চেয়ে এগিয়ে। ওরা অলিম্পিক পদক জিতে ফিরেছে। আর কভিড পরিস্থিতি কি কভিড নেই—কোনো অবস্থাতেই ওরা অনুশীলনের বাইরে ছিল না। এখানে ওরা চ্যাম্পিয়ন হতেই এসেছে। তাদের বিপক্ষে আমাদের নিজেদের সেরাটা ঢেলে দেওয়া ছাড়া আর কোনো লক্ষ্য ঠিক করা আসলে সম্ভব নয়’—কাল ভারত-কোরিয়ার উদ্বোধনী ম্যাচ চলার সময়ই মাঠের পাশে দাঁড়িয়ে বলছিলেন বাংলাদেশের মালয়েশিয়ান কোচ।
সেই ম্যাচে অবশ্য কোরিয়া ভারতকে রুখে দিয়েছে ২-২ গোলে। ২ গোলে পিছিয়ে পড়ে কোরিয়ানরা সমতা ফিরিয়েছে। তাতে ভারত শুরুতেই ধাক্কা খেল এমনটা অবশ্য মনে করেন না ভারতীয়দের কোচ গ্রাহাম রিড, ‘কোরিয়া সব সময়ই কঠিন দল। ভারত-কোরিয়া মুখোমুখি হলে ভারতই প্রাধান্য দেখাবে এমন কোনো কথা নেই। এটা অস্ট্রেলিয়া-কোরিয়া ম্যাচেও আমি দেখেছি। তাই এই পারফরম্যান্সে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। পুরো টুর্নামেন্টই এখনো আমাদের সামনে আছে।’ কোরিয়ার কাছে আটকে যাওয়ার খেদটা ভারত আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে মেটাতে চাইতেই পারে। প্রথম ম্যাচেই পয়েন্ট হারানোয় আজ দুর্বল প্রতিপক্ষকেও এক চুল ছাড় দেবে না, এটা আন্দাজ করাই যায়।’ টুর্নামেন্টটা ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আসলে শুরুর কথা ছিল না বাংলাদেশের। মালয়েশিয়া শেষ মুহূর্তে নাম প্রত্যাহার করে নেওয়াতেই মালয়েশিয়ার বদলে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচটাই পড়ে গেছে র‌্যাংকিংয়ের সেরা দলের বিপক্ষে। বাংলাদেশের প্রস্তুতিতেও তাতে কিছুটা বিঘ্ন ঘটার কথা। যদিও আশরাফুল তাতে মানিয়ে নেওয়ার কথাই বলেছেন, ‘আমাদের কোচিং স্টাফ সবগুলো দলের ভিডিও নিয়েই কাজ করেছেন, আমাদের ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করেছে তাদের শক্তি-দুর্বলতা সম্বন্ধে। আর আজ কোরিয়ার বিপক্ষেও ওদের খেলা দেখেছি। আমাদের তাই ম্যাচ পরিকল্পনায় কোনো সমস্যা হবে না।’

ফুটবলে বড় দলগুলোর বিপক্ষে ছোটদের যেমন রক্ষণাত্মক কৌশল থাকে, হকিতে সেভাবে নিচে নেমে প্রতিপক্ষকে ঠেকিয়ে রাখা একরকম অসম্ভবই। কারণ তাতে একের পর এক পেনাল্টি কর্নার হজম করার আশঙ্কা থাকে। আর একেকটা পিসি মানেই গোলের সুযোগ। বাংলাদেশ দল ডিফেন্ড করলেও সেই কাজটা করবে তাই একেবারে ওপর থেকেই। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই অবশ্য স্বাগতিকরা একটা ধাক্কা খেয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ার্ম আপ ম্যাচে গোল করা রাকিবুল ইসলামকে ভারতের বিপক্ষে পাচ্ছে না বাংলাদেশ, কারণ ওই খেলোয়াড়ের পাসপোর্টই নেই। টিম ম্যানেজমেন্টও সেটা জেনেছে শেষ মুহূর্তে।