1. admin@doinikdakbangla.com : Admin :
দ্বিতীয় দিনে টিকাগ্রহীতা বাড়ল ১৫ হাজারের বেশি » দৈনিক ডাক বাংলা
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন

দ্বিতীয় দিনে টিকাগ্রহীতা বাড়ল ১৫ হাজারের বেশি

নিজস্ব প্রতিনিধি,দৈনিক ডাকবাংলা ডট কম
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১২২ বার পঠিত

গণটিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় দিন ছিল আজ সোমবার। এক দিনের ব্যবধানে দেশে টিকা দেওয়ার সংখ্যা বেড়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার ঢাকা মহানগরসহ সারা দেশে মোট ৪৬ হাজার ৫০৯ জন টিকা নেন। দ্বিতীয় দিন ১৫ হাজার ৩৪৯ জন বেশি টিকা নিয়েছেন। সব মিলিয়ে দুই দিনে টিকা নিলেন ৭৭ হাজার ৬৬৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য বলছে, প্রথম দিন রোববার টিকা নিয়েছিলেন ৩১ হাজার ১৬০ জন। সোমবার সারা দেশে ৯২ জনের মধ্যে মৃদু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। আজ সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন ৫ লাখ ১২ হাজার ৫ জন।

গণটিকাদান পরিকল্পনায় পরিবর্তন এনে সরকার বলছে, ৪০ বছর বয়স হলেই করোনার টিকা নিতে পারবেন। এতে প্রায় সাড়ে চার কোটি মানুষ টিকার আওতায় আসবেন। এর আগে সরকার বলেছিল, টিকার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাওয়া সম্মুখসারির জনগোষ্ঠী ছাড়াও ৫৫ বছর বয়সী বাংলাদেশের যেকোনো নাগরিক এই টিকা পাবেন।
করোনার টিকা নেওয়ার বয়সসীমা পরিবর্তনের বিষয়ে সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দেন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
৭ ফেব্রুয়ারি দেশে গণটিকার কার্যক্রম শুরু হয়। এর এক দিন পর সোমবার সরকার বয়সসীমায় পরিবর্তন আনল। এই পরিবর্তনের ফলে সম্ভাব্য টিকাগ্রহীতার সংখ্যা প্রায় ২ কোটি ৩০ লাখ বেড়ে গেল। দেশে ৫৫ বছরের বেশি বয়সী জনসংখ্যা ২ কোটি ২০ লাখ।

টিকা নিবন্ধনের বয়স কেন কমানো হলো, তা নিয়ে সোমবার দুপুর থেকে নানা আলোচনা শোনা গেছে। অনেকে ধারণা করছেন, নিবন্ধন কম হয়েছে। বয়স কমালে নিবন্ধনের সংখ্যা বাড়বে। কেউ বলছেন, নিবন্ধন করে টিকা না নিলে টিকার মেয়াদ শেষ হয়ে অব্যবহৃত থাকার ঝুঁকি আছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাবিষয়ক মিডিয়া সেলের সভাপতি ও অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা প্রথম আলোকে বলেন, বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনার জন্য বয়সসীমা কমানো হয়েছে। এতে নিবন্ধনও বেশি হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

৭০ লাখ টিকার মজুত নিয়ে সরকার টিকা কর্মসূচি শুরু করেছে। সরকার প্রথম বলেছিল, প্রথমে ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। প্রথম ডোজের আট সপ্তাহ পরে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। হঠাৎ সেই পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনা হয়। জনসংখ্যা কমিয়ে ৩৫ লাখ এবং আট সপ্তাহের পরিবর্তে দ্বিতীয় ডোজের ব্যবধান চার সপ্তাহ করা হয়।

টিকাদানের দ্বিতীয় দিনে ঢাকা মহানগরসহ আট বিভাগে টিকাদান বেড়েছে। গতকাল রোববার ঢাকা মহানগরে টিকা নিয়েছিলেন ৫ হাজার ৭১ জন। সোমবার নিয়েছেন ৭ হাজার ১৭৮ জন।

আজ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকা নিয়েছেন ৫০০ জন, আগের দিন যা ছিল ২৭০ জন। টিকাদান বেড়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে। প্রথম দিন নিয়েছিলেন ৫৬০ জন, গতকাল নিয়েছেন ৮৯৮ জন। গতকাল সকাল নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টিকাকেন্দ্রে আটটি বুথে টিকা দেওয়া শুরু হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডাক বাংলা

Theme Customized BY LatestNews