ঢাকারবিবার , ৩০ আগস্ট ২০২০
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

তুমি থামলে না… এতো দ্রুত কেন এই চলে যাওয়া?

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট, দৈনিক ডাক বাংলা ডটকম
আগস্ট ৩০, ২০২০ ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

হতে পারে কোনো রাস্তায়, কোনো হুড তোলা এক রিকশায়, আমি নীল ছাতা নিয়ে দাঁড়িয়ে, তুমি দেখলে না। রোদে পোড়া এ রোমিও চেহারা, তুমি বুঝলেনা আমার ইশারা, মন বলে যদি থামতে, তুমি থামলে না।

এই গানের কথার মতোই হয়তো থামলেন না লরেন মেন্ডেস কিংবা একদমই থেমে গেলেন। কিংবা থামলেন না, চলে গেলেন না ফেরার দেশে। অল্পকিছুদিন আগেই মিডিয়ায় এসেছিলেন। এরইমধ্যে নিজের মিষ্টি চেহারায় একটা জায়গা করে নিচ্ছিলেন। এয়ারটেলের কয়েকটা বিজ্ঞাপনে তিনি বেশ পরিচিতি লাভ করেন। সংগীত শিল্পী নাহিদের গান ‘তোমার পিছু ছাড়বো না’ দিয়ে বেশ আলোচিত হন। মাহতিম সাকিবের সাথে গুডলাক বলপেনের বিজ্ঞাপন করে নজড় কাড়েন লরেন। কিন্তু কি অভিমানে চলেন এভাবে?
সঙ্গীতশিল্পী নাহিদ কালের কণ্ঠের সাথে আলাপ কালে বলেন, সে ইদানীং খুব অন্যরকম পোস্ট দিচ্ছিল ফেসবুকে। আমার গানে মডেল হবার কারণেই তার সঙ্গে পরিচয়টা ছিল। লুসিফার নামে একটি চরিত্রকে সামনে এনে নানারকম পোস্ট দিচ্ছিল। আমি তার এই আচরণে একটু চিন্তিত হয়ে ফোন দিয়েছিলাম পরশুদিন। সে বলল লুসিফার একটা কাল্পনিক চরিত্র। তেমন কিছু না। আর তেমন কিছু বলেনি।

নাহিদ বলেন, তার ছোট দু’টিবোন আছে, এক বোন থাকে দেশের বাইরে। খুবই হ্যাপি ফ্যামিলি তাদের। কী এমন হলো, কিছু বুঝলাম না। ওর মরদেহ যে হাসপাতালে রাখা হয়েছিল। সেখানে গিয়েছিলাম। পোস্ট মর্টেমের জন্য নেওয়া হবে বলে দেখা হয়নি আমাদের।

লরেনের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর কালাচাঁদপুরের বারিধারা এলাকার নিজেদের বাসায় আজ রবিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৭টার দিকে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এই তরুণী।
নির্মাতা হাবিব শাকিল নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, তোমার কিসের এতো তাড়া ছিলো? তোমার জীবন টাই বা কতো দূর গিয়েছিলো? এতো তাড়াতাড়ি জীবনের অর্থ জেনে গিয়েছিলে যে জীবন সম্পর্কে আগ্রহ হারিয়ে গেলো?তোমার বন্ধুরা কারা? তারাও কি তোমার মতনই জীবনের সবটুকু জেনে গিয়েছে? আচ্ছা খুব জানতে ইচ্ছে করছে কারা তোমার সাথে রাত-দিন জীবনের ছোট এই রাস্তায় হেটে ছিলো? তোমাকে এতো প্রশ্ন করছি কেনো?

উত্তর তো আমরা সবাই জেনে ঘুমিয়ে আছি।জেগে জেগে ঘুমিয়ে থাকার অভ্যাসটা আমাদের সিস্টেমের মধ্যেই আছে আর এতো এতো প্রশ্নের সমাধানও আমাদের শিক্ষা ব্যাবস্থা থেকে শুরু করে রাষ্ট্রের সকল সিস্টেমের মধ্যেই লুকি চুরি খেলছে। তুমি ক্ষমা করে দিও এই অবুঝ সিস্টেম কে
ভালো থেকো ওপারে।