ঢাকাশনিবার , ১৮ জুলাই ২০২০
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

লোভাছড়া কোয়ারীর নিলাম প্রক্রিয়া বাতিলের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

কানাইঘাট প্রতিনিধি, সুজন চন্দ অনুপ।
জুলাই ১৮, ২০২০ ৩:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেট ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সিলেট কর্তৃক কানাইঘাট লোভাছড়া পাথর কোয়ারীতে স্তুপকৃত পাথর জব্দ করে নিলামে বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত বাতিল করার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট সকল মহলের প্রতি দাবী জানিয়েছেন লোভাছড়া কোয়ারীর সর্বস্তরের পাথর ব্যবসায়ীরা। আজ শনিবার বিকেল ৫টায় কানাইঘাট প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে কোয়ারীর পাথর ব্যবসায়ীরা করোনা দুর্যোগকালীন এই সময়ে মানবিক দিক বিবেচনা করে মজুদকৃত পাথর নিলাম প্রক্রিয়া বাতিলের দাবী জানান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পাথর ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিন, সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বিশিষ্ট পাথর ব্যবসায়ী লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান আব্বাস উদ্দিন ও কানাইঘাট বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক পাথর ব্যবসায়ী আব্দুল হেকিম শামীম জানান, গত শুকনো মৌসুমে কোয়ারীর সাবেক ইজারাদার মস্তাক আহমদ পলাশের কাছ থেকে রশিদ মূলে পাথর ব্যবসায়ীরা হাজার হাজার ঘনফুট পাথর বৈধ ভাবে ক্রয় করেন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পর সরকারের সকল নির্দেশনা মেনে ব্যবসায়ীরা কোয়ারীকে তাদের মজুদকৃত ক্রয়কৃত সব ধরনের পাথর বিক্রি বন্ধ করেন। সীমান্তবর্তী দূর্গম এলাকায় অবস্থিত সড়ক যোগাযোগ বিহীন লোভাছড়া পাথর কোয়ারী থেকে ব্যবসায়ীরা তাদের বৈধকৃত ক্রয়কৃত পাথর ইজারার মেয়াদকালীন সময়ে নদীপথে পানি প্রবাহ একেবারে কমে যাওয়ার কারনে চিরাচায়িত নিয়মানুযায়ী সরবরাহ ও বিক্রি করতে পারেননি।
পাথর ব্যবসায়ীরা আরো বলেন, সাবেক ইজাদারের কাছ থেকে পাথর ক্রয় করে বেশির ভাগ ব্যবসায়ীরা সেই পাথর তাদের পাট্টার জায়গার উপর মজুদ করে রেখে বর্তমানে বর্ষা মৌসুমে যখন তাদের খরিদকৃত কোটি কোটি টাকার পাথর নৌপথে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি যখন শুরু করেছেন তখন তারা নানা ভাবে প্রশাসন কর্তৃক তাদের বৈধকৃত পাথর বিক্রি করতে ক্ষতির ও বিড়াম্বনার সম্মুখীন হচ্ছেন। এমতাবস্থায় কোয়ারী এলাকায় রাখা শত শত ছোট-বড় পাথর ব্যবসায়ীদের মজুদকৃত বৈধ পাথর পরিবেশ অধিদপ্তর হঠাৎ করে ব্যবসায়ীদের কোন ধরনের অবহিত না করে নিলামে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিলে ব্যবসায়ীরা সর্বশান্ত হয়ে পড়বেন। সংবাদ সম্মেলনের পাথর ব্যবসায়ীরা আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, বেশির ভাগ ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋন এনে এবং নিজেদের জমি বিক্রি সহ অনেকে তাদের সমস্ত উপার্জিত অর্থ ব্যয় করে সাবেক ইজারাদার মস্তাক আহমদ পলাশের কাছ থেকে হাজার হাজার ঘনফুট পাথর ক্রয় করেছেন। ইজারার মেয়াদকালীন সময়ে নৌপথে পানি কম থাকায় এবং করোনা দূর্যোগের কারনে ব্যবসায়ীরা তাদের পাথর বিক্রি করতে পারেননি। এখন তাদের স্তুপকৃত বৈধ পাথর নিলামে বিক্রি করা হলে শত শত পাথর ব্যবসায়ীরা সবকিছু হারিয়ে পথে বসবেন। এমতাবস্থায় পাথর ব্যবসায়ীদের আর্তনাদ ও তাদের পরিবারের দিকে চেয়ে নিলাম প্রক্রিয়া বাতিল করার জন্য গরীব, দুঃখী, মেহনতি মানুষের দুঃখ, কষ্ট যিনি অনুভব করে থাকেন সেই সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি সংবাদ সম্মেলনে আকুল আহ্বান জানানো হয়।
এ সময় পাথর ব্যবসায়দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,মুহিবুর রহমান,ছয়ফুল আলম,ইকবাল হোসেন,ফরিদ আহমদ,জসীম উদ্দিন,মায়রুফ আহমদ,বজলুর রশিদ,আবু তাহের সহ আরো অনেকে।