ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৫ জুন ২০২০
  1. International
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উৎসব
  6. খেলাধুলা
  7. চাকুরী
  8. জাতীয়
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম
  11. পরামর্শ
  12. প্রবাস
  13. ফরিদপুর
  14. বিনোদন
  15. বিয়ানীবাজার

আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও সাহেদ মুহিত সম্পর্কে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে পরিবারের প্রতিবাদ

স্টাফ রিপোর্টার,সৈয়দ উবায়দুর রহমান
জুন ২৫, ২০২০ ৫:২০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাবেক অর্থমন্ত্রী এবং সিলেট-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবুল মাল আব্দুল মুহিত এবং তাঁর পরিবারের ব্যপারে একটি তথাকথিত সংবাদ প্রচার করা হয়েছে যেটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। এধরণের অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন আবুল মাল আব্দুল মুহিতের পরিবারের সদস্যরা। পরিবারের সদস্যদের পক্ষে সাহেদ মুহিত এক বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ জানান।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়,জাতীয় দুর্যোগের এই কঠিন সময়ে অসাধু উদ্দেশ্যে এক বা একাধিক স্বার্থান্নেষী এবং কুরুচিপূ্র্ণ মহল আবুল মাল আব্দুল মুহিতের মতো একজন অত্যান্ত সম্মানীয় ব্যক্তি ও তাঁর পরিবারের সুনাম নষ্ট করার অপচেষ্টায় কেন লিপ্ত হয়েছে। কেন বা কি কারণে তারা এমন করছে এটা আমাদের বোধগম্য নয়।

আবুল মাল আব্দুল মুহিত একাধারে একজন মুক্তিযোদ্ধা,একজন সফল রাজনিতিবিদ এবং একজন স্বনামধন্য বুদ্ধিজীবি। যিনি তাঁর সমগ্র জীবন দেশ এবং দেশের মানুষের কল্যাণে উৎসর্গ করেছেন। তার ছেলে সাহেদ মুহিত এবং তার পরিবারও দেশের প্রতি আত্মনিবেদনের একই শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ এবং সিলেট ও গোটা বাংলাদেশে তাদের যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। বিগত দুই দশক ধরে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পর্যায়ের এবং সিলেটের অতি বিশিষ্ট ও বিদগ্ধ নেতা হিসেবে সর্বজনপরিচিত।

আবুল মাল আব্দুল মুহিত বাংলাদেশের অন্যতম সফল দীর্ঘকালীন অর্থমন্ত্রী, বাংলাদেশের ঈর্ষণীয় ও দেশ-বিদেশে প্রশংসিত অর্থনৈতিক উন্নয়নে যার উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে। আর, ২০০১ সাল থেকে সাহেদ মুহিত সর্বত্রভাবে তার বাবার পাশেই রয়েছেন এবং তাঁকে পারিবারিক, রাজনৈতিক এবং অন্যান্য সকল ব্যাপারে সহায়তা করেছেন। এছাড়া বাবার নির্বাচনী এলাকা সিলেট-১ আসনের এলাকাবাসীদের পাশে সাহেদ মুহিত সবসময় ছিলেন,আছেন এবং থাকবেনও।

সর্বজনশ্রদ্ধেয় জননেতা আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও তার পরিবারবর্গের ব্যাপারে প্রকাশিত এই নির্লজ্জ মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করা হয় বিবৃতিতে।