1. admin@doinikdakbangla.com : Admin :
এতেকাফ:গুনাহ মাফের উত্তম পন্থা- ড.সৈয়দ রেজওয়াজ আহমদ.. » দৈনিক ডাক বাংলা
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন

এতেকাফ:গুনাহ মাফের উত্তম পন্থা- ড.সৈয়দ রেজওয়াজ আহমদ..

সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার, সৈয়দ উবায়দুর রহমান
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৩ মে, ২০২০
  • ১৪৫ বার পঠিত


পবিত্র মাহে রমজানের শেষ দশকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটা আমল হলো এ’তেকাফ করা। এ’তেকাফ এমন এক ইবাদত যা মানুষের উপর নৈতিক ও আধ্যাত্মিক প্রভাব সৃষ্টি করে এবং মানুষকে পরহেজগারির পথে পরিচালিত করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের পথ বাতলে দেয়। রমজানের এ’তেকাফ করা সুন্নতে মোয়াক্কাদায়ে কেফায়া। অর্থাৎ কিছুসংখ্যক মানুষ আদায় করলেই সকলের পক্ষ থেকে সুন্নতে কেফায়া আদায় হয়ে যাবে। কিন্তু কেউই আদায় না করলে সকলেই গুনাহগার হবে।

এ’তেকাফ’ আরবি শব্দ। এর অর্থ হলো অবস্থান করা বা আবদ্ধ রাখা। পরিভাষায় এ’তেকাফ হলো ইবাদতের উদ্দেশ্যে ইতিকাফের নিয়তে নিজেকে নির্দিষ্ট জায়গায় নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত আবদ্ধ রাখা। যিনি এ’তেকাফ করেন, তাঁকে ‘মু’তাকিফ’ বলে।
পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তাআলা বলেন: যখন আমি কাবা গৃহকে মানুষের জন্য সম্মিলন স্থল ও শান্তির স্থান করলাম, আর তোমরা মাকামে ইব্রাহিম নামাজের জায়গা বানাও এবং আমি ইব্রাহিম ও ইসমাইলকে আদেশ করলাম, তোমরা আমার গৃহকে তওয়াফকারী, এ’তেকাফকারী ও রুকু সিজদাকারীদের জন্য পবিত্র রাখো। আর যতক্ষণ তোমরা ইতিকাফ অবস্থায় মসজিদে অবস্থান করো, ততক্ষণ পর্যন্ত স্ত্রীদের সঙ্গে মেলা-মেশা কর না। এই হলো আল্লাহ কর্তৃক বেঁধে দেওয়া সীমানা। অতএব, এর কাছেও যেয়ো না। এমনিভাবে বর্ণনা করেন আল্লাহ তাঁর আয়াতগুলো মানুষের জন্য, যাতে তারা তাকওয়া লাভ করতে পারে। (আল কুরআন; ২ : ১২৫)

এতেকাফ লাইলাতুল কদরের ফজিলত ও মর্যাদা লাভের নিশ্চিত একটি মাধ্যম। কেননা রাসুল স. বলেছেন-রমজানের শেষ দশকের রাতগুলোর যেকোনো একটিতে লাইলাতুল ক্বদর রয়েছে।(সহিহ মুসলিম)

হযরত আয়েশা রা. বর্ণনা করেন, রাসূল সা. রমজান মাসের শেষ দশকে মসজিদে এতেকাফ করতেন। তার মৃত্যু পর্যন্ত তিনি এ আমল অব্যাহত রেখেছেন। (সহিহ বোখারি)

অন্য এক হাদীসে এসেছে- এতেকাফের দ্বারা জাহান্নাম দূরে চলে যায়। রাসূল সা. বলেছেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে এক দিন এতেকাফ করবে আল্লাহ তায়ালা তার ও জাহান্নামের মাঝে তিন পরিখা পরিমাণ দূরত্ব সৃষ্টি করবেন; যার দূরত্ব দুই দিগন্তের দূরত্বের থেকে বেশি দূরত্ব হবে। (কানযুল উম্মাল)

রাসূল সা. আরও বলেছেন, যে ব্যক্তি রমজানে দশ দিন এতেকাফ করবে তার আমল দুই হজ ও দুই ওমরার সমতুল্য। (সহীহ বুখারী)। আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে রমজানের শেষ দশকে এতেকাফ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

লেখক: অধ্যক্ষ সৈয়দপুর ফাজিল মাদ্রাসা, জগন্নাথপুর, সুনামগঞ্জ।
dak bangla logo

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডাক বাংলা

Theme Customized BY LatestNews