1. admin@doinikdakbangla.com : Admin :
লকডাউনে মন ভালো রাখুন,অপসাংস্কৃতিককে ভয়কট করে। » দৈনিক ডাক বাংলা
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৯:১৮ পূর্বাহ্ন

লকডাউনে মন ভালো রাখুন,অপসাংস্কৃতিককে ভয়কট করে।

সৈয়দ উবায়দুর রহমান
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ৩১১ বার পঠিত

সৈয়দ উবায়দুর রহমান:লকডাউনে মন ভালো রাখুন,অপসাংস্কৃতিককে ভয়কট করে।করোনার মহামারির কারণে লকডাউন চলছে। দীর্ঘদিন ঘরবন্দি অবস্থায় মানসিক অবসাদে ভুগছেন অনেকেই। আর এতদিন এ অবস্থায় থাকতে কারোই ভালো লাগার কথা নয়। এই কঠিন পরিস্থিতিতে অনেক বিশেষজ্ঞই মানসিক চাপ কমাতে গান শোনার উপদেশ দিচ্ছেন। তাঁদের পরামর্শ গান আমাদের মন মুহূর্তের মধ্যে ভালো করতে বিশ্বাসযোগ্যভাবে কার্যকরী। আর তাই দিনে দিনে মিউজিক থেরাপি এমন জনপ্রিয়তা লাভ করছে। মূলত সেই কারণে সাধারণ মানুষের মনের চাপ কমাতে এবং তাঁদের এই ঘরবন্দি অবস্থার ডিপ্রেশনের হাত থেকে রক্ষা করতে গান শোনার পরামর্শ দিয়েছেন মনোবিদরা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গান শুনলে মানসিক চাপ কমে। মন খারাপ লাগছে, কিংবা মাথায় অসম্ভব চাপ অনুভূত হচ্ছে? তাঁদের পরামর্শ অল্প করে কিছুক্ষণ গান শুনে নিন। চুপচাপ গানের জগতে ডুব দিন বেশ কিছুক্ষণ। এই টোটকা ব্যবহার করলে হতাশ হবেন না কিন্তু একেবারেই। মুহুর্তের মধ্যে দেখবেন সব মন খারাপ ভুলে অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই আবার পূর্ণ উদ্যোমে কাজ করা শুরু করেছেন। তবে এক্ষেত্রে কিছু বিষয় মেনে চলা জরুরী। আসুন জেনে নিই কী সেগুলো। কী ধরনের গান শুনবেন, সেটাও ঠিকঠাক বাছা জরুরী। আপনার মুড খারাপ, আর সেইসময়ই দুঃখের গান শুনছেন, তাহলে কিন্তু মুশকিল।মিউজিক বাজিয়ে গান শুনছেন তাহলে আরো বড় মশকিল!সর্বকেত্রে আপনার প্রথমে ভাবা দরকার আপনি একজন মুসলমান, সে জন্য আপনার বড় সম্পদ হলো আপনার ঈমান,ঘরবন্দি থাকা অবস্তায় যদি আপনার ঈমানটা বন্দি না রাখতে পারেন, তাহলে আপনি কী আপনিই সিদ্ধান্ত নেন,নাস্তিক ও অমুসলিম বিশেষজ্ঞ রা, কখনো আপনার ঈমান আক্বিদা সুরক্ষার চিন্তা না করে, ক্ষুরক্ষার চিন্তাটা তাদের প্রথম আসে!আমি আপনি শুকরিয়া জানাই মাওলার দরবারে। বর্তমান এই পরিস্তিতি যেমন গজব তেমন রহমতও।এবং গোনাহগার বান্দা বান্দির জন্য একটা সুবর্ণ সুযোগ মনে করি, খোদার কসম করে বলছি ,আপনার মানসিক চাপ, চিন্তা, মনে করছেন এগুলা এখন আক্রমন করছে, ঘরবন্দি থাকায় এগুলা আরো শক্তি হয়ে কাজ করছে, পরিত্রান এর জন্য অপসাংস্কৃতির আশ্রয় না নিয়ে, অজু করুন, নিয়মিত নামাজ সহ নফল নামাজ আদায় করুন, কোরআন তেলাওয়াত করুন, অতীত জীবনের গোনাহর কথা স্বরণ করুন, মাফ চাওয়া এবং তওবার এই সুবর্ণ সুযোগটা কাজে লাগান,স্ত্রী ‘বাচ্ছা দের সময় দিন, এগুলা যখন আপনি চালু করবেন দেখবেন আপনার পুরা ঘরটাই নামাজি হয়েগেছে।আপনার মুড চেইঞ্জ হতে চলেছে, সকালে যদি তওবা করেন, দেখবেন মধ্যেবেলায় শান্তি লাগছে, মধ্যেবেলায় তওবা করলে দিনের শেষ লগ্নে শান্তির মাত্রা আরো বাড়বে, এভাবেই আপনি শান্তিময় সময় পার করবেন।মাঝে মাঝে ওয়াজ নসিহত শুনুন, ছোট ছোট মাসয়ালার আমল করুন, মুড বুঝে পছন্দমতো ইসলামি গজল শুনুন।ইসলামি গান শোনাই ভালো। এতে চাপ ও খারাপ মানসিকতা দূর করে,ইসলাম শান্তির ধর্ম, ইসলামের গবেষণাই পারে আপনাকে আমাকে শান্তিময় রাখতে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে আমল করার তৌফিক দান করুন :আমীন

লেখক :সৈয়দ উবায়দুর রহমান, সম্পাদক :এপার-ওপার

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক ডাক বাংলা

Theme Customized BY LatestNews